BusinessTech

চমকপ্রদ সব ফিচার নিয়ে বাজারে এলো রিয়েলমি GT Neo 2

রিয়েলমি একের পর এক চমক দিয়েই যাচ্ছে। কোম্পানিটি তাদের নতুন স্মার্টফোন জিটি নিও২ এর মাধ্যমে আরেক দফা তাক লাগিয়ে দিল। চীনে রিয়েলমি প্রকাশ করল তাদের নতুন স্মার্টফোন GT Neo 2 যা অসাধারণ স্পেসিফিকেশন নিয়ে ব্যবহারকারীদের দারুণ এক অভিজ্ঞতা দিতে সক্ষম।

রিয়েলমি GT Neo2 ফোনটি চলবে শক্তিশালী স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসেসরে। বর্তমানে এটিই মার্কেটের একমাত্র চিপসেট যেটি কিনা ৩.২ গিগাহার্টজ পর্যন্ত পারফর্ম করতে পারে। ফোনটিতে থাকছে ৬/৮/১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম এবং ১২৮/২৫৬জিবি ইউএফএস ৩.১ স্টোরেজ। এই ফোনটি যে গেমারদের নিকট একটি আলোচনার বিষয় হবে সেকথা বলাই বাহুল্য।

রিয়েলমির এই নতুন স্মার্টফোনটির স্ক্রিন সাইজ ৬.৬ ইঞ্চি। এটি একটি অ্যামোলেড ডিসপ্লে। স্যামসাংয়ের তৈরি এই প্যানেলটি ফুল এইচডি প্লাস রেস্যুলুশন দেবে। এর উজ্জ্বলতা হবে ১৩০০ নিটস। আর হ্যাঁ, এই ফোনটির স্ক্রিন রিফ্রেশ রেট হবে ১২০ হার্টজ।

রিয়েলমি GT Neo 2 ফোনের পেছনের দিকে থাকছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপঃ ৬৪ মেগাপিক্সেল ওয়াইড ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল আলট্রা ওয়াইড এঙ্গেল লেন্স, এবং ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা। ডিভাইসটির সামনের দিকে পাচ্ছেন ১৬ মেগাপিক্সেল পাঞ্চ হোল সেলফি ক্যামেরা।

গেমিং ও হেভি ইউজ সাপোর্ট করার জন্য ফোনটিতে দেয়া হয়েছে ডায়মন্ড পার্টিকেল যুক্ত কুলিং জেল, গ্রাফিন শিট এবং ভ্যাপর কুলিং চেম্বার। এই সবকিছু মিলে ফোনটির তাপমাত্রা ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত কমাতে পারবে। এই সিরিজের প্রথম ফোনটির চেয়ে লেটেস্ট মডেলটি ২০% পর্যন্ত ভালো পারফর্মেন্স উপহার দেবে।

 

৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি দেয়া হয়েছে রিয়েলমির এই নতুন ফোনে। সাথে পাবেন ৬৫ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং (ওয়্যার্ড), যা ০ থেকে ১০০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ দিতে সময় নেবে মাত্র ৩৬ মিনিট।

অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে পাচ্ছেন এন্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক রিয়েলমি ইউআই ২.০, সাথে থাকবে জিটি মোড ২.০ যা ফোনের পারফরমেন্সকে গেমিং এর জন্য আরও বেশি উপযোগী করে তুলতে পারবে। এছাড়া আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট, ৩.৫মিমি হেডফোন জ্যাক, ৫জি সাপোর্ট প্রভৃতিও আছে। আপনি যদি একটি শক্তিশালী গেমিং ফোন চান, তাহলে এই ফোনটি বিবেচনায় রাখতে পারেন।

একনজরে রিয়েলমি জিটি নিও২ স্পেসিফিকেশন

  • স্ক্রিনঃ ৬.৬২ ইঞ্চি (১০৮০ x ২৪০০পি, ৩৯৮ পিপিআই, ২০:৯ অ্যাসপেক্ট র‍্যাশিও, স্যামসাং E4), ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট, অ্যামোলেড প্রযুক্তি, পাঞ্চ হোল।
  • প্রসেসরঃ স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ অক্টাকোর ৭ ন্যানোমিটার সিপিইউ, এড্রিনো ৬৫০ জিপিইউ।
  • র‍্যামঃ ৬/৮/১২জিবি।
  • স্টোরেজঃ  ১২৮/২৫৬ জিবি। মেমোরি কার্ড স্লট নেই।
  • ক্যামেরাঃ পেছনে ৬৪ + ৮ + ২ মেগাপিক্সেল মিলিয়ে মোট ৩টি ক্যামেরা, ডুয়াল এলইডি ফ্ল্যাশ। সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
  • ব্যাটারিঃ  ৫০০০ এমএএইচ, ৬৪ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। ৩৬ মিনিটে শূন্য থেকে ১০০% চার্জ হয়।
  • ওএসঃ এন্ড্রয়েড ১১.০, রিয়েলমি ইউআই ২.০ স্কিন।
  • সিমঃ ডুয়াল সিম, ৫জি সাপোর্ট।
  • লক-আনলকঃ  আন্ডার ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর
  • অন্যান্যঃ এনএফসি সেন্সর যা দিয়ে কন্টাক্টলেস পেমেন্ট ও ফাইল শেয়ারিং সম্ভব। ৩.৫ মিমি হেডফোন জ্যাক আছে, ব্লুটুথ ৫.১, ইউএসবি ২.০, টাইপ সি পোর্ট, কুলিং সুবিধা।

 

রিয়েলমির নতুন এই ফোনের দাম ২৩৯৯ চায়নিজ ইউয়ান থেকে শুরু, যা স্পেসিফিকেশন অনুসারে ২৯৯৯ ইউয়ান পর্যন্ত উঠবে। এই প্রাইসিং বাংলাদেশি টাকায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকার মত হয়। চীনে এর বিক্রি শুরু ২৭ সেপ্টেম্বর। তবে এটি বাংলাদেশে কবে বিক্রি শুরু হবে তা জানা যায়নি।চমকপ্

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button